সহজ উপায়ে ওয়াইফাই ইন্টারনেট গতি বৃদ্ধি করুন ৩ গুন পর্যন্ত।

ইন্টারনেট এখন এমন একটি সাধারণ বস্তুতে পরিণত হয়েছে, যে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠেছে। আমাদের অনেকেই এখন ইন্টারনেট ছাড়া একদিনও চলতে পারে না। উন্নত দেশের মতো আমাদের দেশেও ইন্টারনেট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। আমাদের দেশের সরকারি অনেক সেবা, ব্যাংকিং সহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ সেক্টরে ইন্টারনেটের ব্যাবহার বাড়ছে দিন কে দিন। এছাড়াও ব্যক্তিগতভাবে  বিনোদন, সামাজিক যোগাযোগ এবং ব্যবসা ক্ষেত্রে ব্যাপকহারে ইন্টারনেট ব্যাবহার করা হয়। এমনকি বর্তমানের অনেক গ্যাজেট  ওয়াইফাই ইন্টারনেটের উপর নির্ভর যেমনঃ- স্মার্ট টিভি, স্মার্ট ফোন ইত্যাদি। কিন্তু ধীর গতির ইন্টারনেট সংযোগ যে কত বিরক্তিকর হতে পারে তা কেবল ভুক্তভোগী মাত্রই জানে।

ওয়াইফাই ইন্টারনেটের গতি এবং পারফরম্যান্স বৃদ্ধির ব্যাপারে আপনি কি পদক্ষেপ নিয়েছেন ? না রাউটার রিস্টার্ট কখনোই ওয়াইফাই ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি করে না! আজকে জেনে নিন ওয়াইফাই ইন্টারনেটের গতি বাড়ানোর কার্যকর কিছু টিপস। আর বাড়িয়ে নিন আপনার ওয়াইফাই ইন্টারনেটের গতি তিন গুন পর্যন্ত।

ধাতু বা বৈদ্যুতিক বস্তু থেকে রাউটার দূরে রাখুন

রেফ্রিজারেটর বা মাইক্রোওয়েভের মতো বস্তু রাউটারের সিগন্যালকে দুর্বল করে দেয়। এসব বৈদ্যুতিক বস্তুর সামনে বা আশেপাশে ওয়াইফাই রাউটার না রাখাই ভালো। আপনার ল্যাপটপ বা ডেস্কটপের কাছাকাছি কোন স্থান নির্বাচন করুন রাউটারের জন্য। রাউটারের  নিকটবর্তী স্থান থেকে সেল ফোন ব্যাবহার করুন। এতে আপনার রাউটার সিগন্যালের শক্তি বৃদ্ধি পাবে।

রাউটার উঁচু স্থানে সেট করুন

ইন্টারনেট গতি
fair use. only for educational purposes Image Source: www.cbsi.com

আপনার ওয়াইফাই রাউটারটিকে ভূমি থেকে অন্তত ২ মিটার উঁচুতে স্থাপন করুন। উঁচুতে স্থাপনের কারণে ওয়াইফাই সিগন্যাল কোথাও বাধাপ্রাপ্ত হয়না এবং একটি বৃহত্তর এলাকা জুড়ে সিগন্যাল পৌছতে পারে। উঁচুতে রাউটার স্থাপন বাড়ির প্রতি কোণে শক্তিশালী ওয়াইফাই সংকেত প্রেরণ নিশ্চিত  করবে।

আপনার রাউটার ধূলিকণা মুক্ত রাখুন

রাউটারের জন্য ধূলিকণা একটি বড় ফ্যাক্টর যা ইন্টারনেট গতি ধীর করে দেয়। ধূলিকণা এড়ানোর সম্ভাব্য সর্বোত্তম উপায় হলো, রাউটারের জন্য এমন কোন স্থান নির্বাচন করতে যেখানে ধূলিকণা কম এবং মানুষের যাতায়াত কম। এছাড়াও সপ্তাহে অন্তত তিনবার আপনার রাউটারটি পরিষ্কার করুন। এটি অবশ্যই আপনার ইন্টারনেট গতি বৃদ্ধিতে অবদান রাখবে।

মানুষের কাছ থেকে রাউটার দূরে রাখার আরও একটি বড় কারণ হলো, মানুসের শরীরের ৬০% পানি। আর পানি রাউটারের গতিকে শ্লথ করে দেয়!

আপনি যেই রুমে ইন্টারনেটের কাজ করেন সেই রুমেই রাউটারটি সেট করুন

ইটের দেয়াল রাউটারের বিকিরণ শোষণ করে নেয় এবং আপনি যদি রাউটার সেট করা স্থান থেকে দূরে কোন রুমে ইন্টারনেটের কাজ করেন, তবে আপনার ইন্টারনেট স্লো করবে। আপনি যেখানে কাজ করেন সেই রুমেই যেন রাউটারটি থাকে তা অবশ্যই নিশ্চিত করবেন।

দূরত্ব এবং স্থান এই দুটো ওয়াইফাই ইন্টারনেট গতি শ্লথ করে দেয়। এই ক্ষেত্রে বাড়ির কাঠামো প্রধান ভূমিকা পালন করতে পারে, যদি ওয়াইফাই রাউটারের সিগন্যাল বিভিন্ন বাধা অতিক্রম করে আপনার ডিভাইসে আসে তাহলে ইন্টারনেটের গতি তো কম হবেই। নতুন রাউটার কেনার সময় খেয়াল রাখুন রাউটারটিতে ‘বিমফরমিং’ (Beamforming) প্রযুক্তি ব্যাবহার করা হয়েছে কিনা। নতুন এই প্রযুক্তি ওয়াইফাই সিগন্যাল বাধা পাওয়ার সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।

আপনার রাউটারের চ্যানেল পরিবর্তন করুন

যদি আপনার বাসার আশেপাশে আরো অনেকেই ওয়াইফাই ইন্টারনেট ব্যাবহার করে তাহলে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি করা একটি বড় সমস্যা। একটি রাউটারের অপর রাউটারের সাথে সঙ্ঘৃষ্ট সৃষ্টি করতে পারে। এক চ্যানেলে অনেকগুলো ইন্টারনেট কানেকশন থাকলে রাউটার স্লো হয়ে যায়। ইন্টারনেটে অনেক ফ্রী রাউটারের চ্যানেল স্ক্যানার সফটওয়্যার আছে। ব্যাবহার করে দেখতে পারেন।

ফার্মওয়্যার আপডেট করা যায় এমন রাউটার ইনস্টল করুন

ইন্টারনেট গতি
fair use. only for educational purposes Image Source: www.commotionwireless.net

এবং এটিই সবচে বেশি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট কিন্তু ব্যাবহারকারীরা এই ব্যাপারে খুব কমই গুরুত্ব দেন। বেশিরভাগ নতুন মডেলের রাউটারই এর সফটওয়্যার আপডেটের সময় নোটিফিকেশন দেয়। কিন্তু পুরনো মডেলে এই সুবিধা নেই। তাই রাউটার কেনার সময় এই বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। আপডেটেড রাউটার সফটওয়্যার পুরনো ভার্সনের তুলনায় ভালো সার্ভিস দেয় এবং ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি করে।

Author

Recent Posts

Leave a Reply

eighteen − sixteen =

Close Menu